গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধিত। নিবন্ধন নং – ৬০
Wednesday, 17 April 2024

কী পরিমাণ সম্পদ থাকলে কুরবানি আবশ্যক?

অনেক ইবাদতের জন্যই সুনির্দিষ্ট মানদণ্ড রয়েছে। যেমন সম্পদহীন ব্যক্তি চাইলে হজ আদায় করতে পারবে না। আবার সম্পদশালী ব্যক্তির শারীরিক সক্ষমতা না থাকলেও হজ করতে পারবে না। জাকাত আদায়ে রয়েছে সুনির্দিষ্ট নীতিমালা।

কিন্তু কুরবানির মতো আত্মত্যাগের মহান ইবাদত কার কার জন্য প্রযোজ্য? কী পরিমাণ সম্পদ হলে কুরবানি আবশ্যক হয়? এ বিষয়ে রয়েছে সুস্পষ্ট বর্ণনা।

জিলহজ মাসের ১০, ১১ ও ১২ তারিখ কুরবানি আদায় করতে হয়। এ দিনগুলোতে যারা নিত্য প্রয়োজনীয় সাংসারিক খরচ ছাড়া অতিরিক্ত নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক থাকবে তাদের ওপর কুরবানি আদায় করা আবশ্যক।

এ নিসাব পরিমাণ সম্পদ হলো- সাড়ে ৭ তোলা স্বর্ণ বা এর সমমূল্য কিংবা সাড়ে ৫২ তোলা রূপা কিংবা তার সমমূল্যের সম্পদ থাকা। তবে কুরবানি আবশ্যক হতে এ পরিমাণ সম্পদ পূর্ণ ১ বছর থাকা শর্ত নয়।

কুরবানি আদায় সম্পর্কে যা জানা জরুরি
– যে ব্যক্তি ১০ জিলহজ ফজর হতে ১২ জিলহজ সন্ধ্যা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে উল্লেখিত নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক থাকবে, ওই ব্যক্তির জন্য কুরবানি আদায় করা আবশ্যক।

– পারিবারিক ব্যয় নির্বাহের জন্য যে পরিমাণ জমি বা ফসলের (খাদ্য-শস্য) দরকার; সে পরিমাণ থেকে অতিরিক্ত জমি বা ফসলের মূল্য অথবা যে কোনো একটির মূল্য যদি নিসাব পরিমাণ সম্পদের মূল্যের সমান হয়। তাহলেও ওই ব্যক্তির জন্য কুরবানি করা আবশ্যক।

– পরিবারের সব সদস্যের যদি নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিকানা থাকে তবে সবার ওপরই কুরবানি করা আবশ্যক।

– গরিব ব্যক্তি যদি কুরবানির নিয়তে কুরবানির পশু ক্রয় করে তবে ওই ব্যক্তির ওপর কুরবানি সম্পন্ন করা আবশ্যক।

– কোনো ব্যক্তি স্বচ্ছল হোক অস্বচ্ছল হোক কুরবানির মান্নত করলে তা আদায় করাও আবশ্যক।

– কোনো ব্যক্তি যত বেশি সম্পদের মালিক হোক না কেন, তার জন্য একটি কুরবানিই আবশ্যক। সম্পদ বেশি বলে একাধিক কুরবানি আদায়ের কোনো বিধান নেই। তবে একাধিক কুরবানিতে রয়েছে অধিক সাওয়াব।

সর্বোপরি, যাদের ওপর ফিতরা দেয়া আবশ্যক; তাদের জন্য কুরবানি আদায় করাও আবশ্যক। অতএব প্রত্যেক স্বাধীন, প্রাপ্ত বয়স্ক, নিসাব পরিমাণ সম্পদে মালিক, সুস্থ নারী-পুরুষের জন্য কুরবানি আদায় করা আবশ্যক।

সুতরাং সাংসারিক খরচ মেটানের পর জিলহজ মাসের ১০, ১১ ও ১২ তারিখে অতিরিক্ত নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক হলেই কুরবানি করা আবশ্যক হবে।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিকদেরকে যথাযথভাবে কুরবানি আদায় করার মাধ্যমে তার নৈকট্য অর্জনের তাওফিক দান করুন। আমিন।

সর্বশেষ

মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর...

আধিপত্য বিস্তারের জেরে চকরিয়ায় দুইজনকে হত্যার অভিযোগ

আধিপত্য বিস্তারের জেরে কক্সবাজারের চকরিয়ায় মো. সেলিম (৪৩) ও...

পটিয়ায় বিচার চলাকালীন চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে সাংবাদিকের ওপর হামলার অভিযোগ

চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার ১১নং কেলিশহর ইউনিয়ন পরিষদে বিচার চলাকালীন...

ফিরিঙ্গিবাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে শিক্ষামন্ত্রীর সহায়তা প্রদান

নগরের ৩৩ নং ফিরিঙ্গিবাজার ওয়ার্ডের আওতাধীন এয়াকুবনগর ও টেকপাড়ায়...

শুধু কিশোর গ্যাং নয়, তাদের গড ফাদারদেরও আইনের আওতায় আনা হবে: জেলা প্রশাসক

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবুল বাসার...

গাজীপুরে ব্যাটারি কারখানায় বিস্ফোরণ, চীনা নাগরিক নিহত

গাজীপুরে একটি ব্যাটারি কারখানায় বিস্ফোরণে পু সুকি (৫২) নামের...

আরও পড়ুন

চট্টগ্রামের অর্ধশতাধিক গ্রামে উদযাপিত হচ্ছে ঈদ

মধ্যপ্রাচ্যসহ মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে মিল রেখে দক্ষিণ চট্টগ্রামের চন্দনাইশ, আনোয়ারা, বাঁশখালী, পটিয়াসহ অর্ধশতাধিক গ্রামে উদযাপিত হচ্ছে ঈদ।সাতকানিয়ার মির্জাখীল দরবার শরীফ ও চন্দনাইশের জাঁহাগিরিয়া শাহ...

জেমিসন রেড ক্রিসেন্ট মাতৃসদন হাসপাতালের কর্মচারীরা পেলেন ঈদ উপহার

জেমিসন রেড ক্রিসেন্ট মাতৃ সদন হাসপাতালের কর্মচারীদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি চট্টগ্রাম জেলা ইউনিটের চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান...

বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকার কঠোর অবস্থানে: ওবায়দুল কাদের

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে, সিন্ডিকেট ভাঙবেই ৷ ক্ষমতায় যেতে না...

বাংলাদেশের ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম প্রাণকেন্দ্র এম ই এস কলেজ ছাত্রলীগ

ভালোবাসার এক বন্ধনে মিলিত হব আনন্দ এমন শ্লোগানে দুইদিন ব্যাপী কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত অনুষ্ঠিত হয়েছে ওমরগনি এমইএস কলেজ শাখা ছাত্রলীগ-ছাত্র সংসদ এর আনন্দভ্রমনে কর্মশালা...