ফলোআপ

অল্প সময়ে বেশি টাকা আয়ের আশায় বিমান ধরকে খুন

আইয়ুব আলীর জবানবন্দি

শেয়ার

কিভাবে অল্প সময়ে বেশি টাকা আয় করা যায় অটো রিকশা চালক জিল্লুর রহমানের এমন প্রশ্নের উত্তরে আইয়ুব আলীর জবাব, “রিস্ক বেশি সময় কম টাকা বেশি”। গৈড়লা গ্রামের বিমান ধর চট্টগ্রাম শহরে স্বর্ণ ব্যবসায়ী ৷ প্রতিদিনই সে স্কুটি চালিয়ে শহর থেকে নিজ গ্রামে চলে আসে ৷ আইয়ুবের ধারণা তার কাছে সব সময় ১০/১৫ লক্ষ টাকা আর স্বর্ণের বিস্কিট থাকে৷ আইয়ুব আলী আর জিল্লুর রহমান দুজন মিলে পরিকল্পনা করে কিভাবে বিমান ধরকে ধরা যায় ৷ কয়েকদিন নজরদারির পর নির্জন জায়গা দেখে একদিন সেই ব্যবসায়ীকে বাড়ি ফেরার পথে রাতের আধাঁরে করে ফেললো খুন।

পটিয়ায় ৬ সেপ্টেম্বর রাতের আঁধারে প্রতিদিনের মত শহর থেকে ফেরার পথে ব্যবসায়ী বিমান ধরকে গলা কেটে হত্যা করার রহস্য উদঘাটনের পর এমন তথ্যই জানালো পুলিশ।

পটিয়া হুলাইন ছালেহ নূর কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী মোঃ আইয়ুব আলী (১৮) এবং অটো রিকশা চালক মোঃ জিল্লুর রহমান(২৬) এই দুজন হত্যাকান্ডে অংশগ্রহণ করে। আইয়ুব আলী জঙ্গলখাইন ইউনিয়নের লড়িহরা গ্রামের নুরুল আজগরের পুত্র এবং জিল্লুর রহমান একই ইউনিয়নের ফরিদ চেয়ারম্যান বাড়ির মৃত ওবায়দুল হকের পুত্র।

আরো পড়ুন:পটিয়ায় স্বর্ণ ব্যবসায়ীর জবাই করা লাশ উদ্ধার

ঘটনার দিন বিমান ধর শহরের ব্যবসা প্রতিষ্টান থেকে তার স্কুটি চালিয়ে বাড়ি ফেরার পথে তার পথ রোধ করে থামায় ওরা ৷এরপর জিল্লুর রহমান তাকে মাটিতে ফেলে চেপে ধরে আর আইয়ুব আলী তার গলা কাটে ৷ এসময় পাশ্ববর্তী এলাকার লোকজন বেরিয়ে পরলে আইয়ুব আলী বিলের মাঝখান দিয়ে পালিয়ে যায় আর জিল্লুর রহমান রিকশা নিয়ে সরে পরে। ঘাতক আইয়ুব আলী পালিয়ে যাওয়ার সময় একটা পুকুরে ডুব দিয়ে গায়ে থাকা রক্ত ধুয়ে নেয়। এই ঘটনার দুই দিন পর সে ফটিকছড়ি মামার বাড়ি পালিয়ে যায়৷ সেখান থেকে আবার ফটিকছড়িতেই তার মামার শ্বশুর বাড়ি পালিয়ে যায়। গত বৃহস্পতিবার বিমান ধরকে হত্যার ঘটনায় আটক জিল্লুর রহমানের স্বীকারোক্তি মোতাবেক আইয়ুব আলীকে পুলিশ শুক্রবার ভোর রাতে ফটিকছড়ি তার মামার শ্বশুর বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করতে সমর্থ হয় ৷

আরো পড়ুন: পটিয়ায় স্বর্ণ ব্যবসায়ী হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ২

শনি বার চট্টগ্রামের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট নাজমুন নাহারের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেয় আইয়ুব আলী। বিমান ধরকে হত্যার ঘটনায় তার সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে সে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পটিয়া থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) সঞ্জয় ঘোষ জানান, স্বর্ণ ব্যবসায়ী বিমান ধর হত্যার ঘটনায় মূল আসামীদের খুঁজে বের করতে পুলিশ শুরু থেকে তৎপর ছিলো৷ চাঞ্চল্যকর এই হত্যায় জড়িত মূল আসামীদের আমরা গ্রেপ্তার করতে পেরেছি ৷তাদের জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত আছে ৷ আমরা চেষ্টা করছি এর পেছনে আরো কোন রহস্য থাকলে তা খুঁজে বের করতে।

পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার জানান, জটিল একটি হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন হয়েছে ৷ আমরা পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করব।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সর্বশেষ

Welcome Back!

Login to your account below

Create New Account!

Fill the forms bellow to register

Retrieve your password

Please enter your username or email address to reset your password.

Add New Playlist