গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধিত। নিবন্ধন নং – ৬০
Sunday, 23 June 2024

“ভালো নেই হালদার বর্তমান স্বাস্থ্য ব্যবস্থা”

চট্টগ্রাম নিউজ ডটকম

বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ হালদা নদী মেজর কার্প জাতীয় মাছের (রুই, কাতলা, মৃগেল ও কালিবাউশ) একটি অন্যতম ও গুরুত্বপূর্ণ প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র। প্রতিবছর প্রজনন মৌসুমে (এপ্রিল-জুন) অমাবস্যা ও পূর্ণিমার তিথিতে যদি বজ্রপাতসহ পর্যাপ্ত পরিমাণে বৃষ্টি হয় এবং পাহাড়ী ঢল নেমে পানিতে তীব্র স্রোত সৃষ্টি করে এবং পানির তাপমাত্রা কমে (২৭-২৯) ডিগ্রী সেলসিয়াস ও বিভিন্ন ভৌত ও রাসায়নিক প্যারামিটারের মিত্রস্ক্রিয়তায় হালদা নদীতে কার্পজাতীয় মাছের ডিম ছাড়ার প্রাকৃতিক অনুকুল পরিবেশ সৃষ্টি হলেই কেবল মা মাছ ডিম ছাড়ে। গড়ে ৫০০-৬০০ জন স্থানীয় ডিম সংগ্রহকারী এসব ডিম সংগ্রহ করে মাটির তৈরি কূয়া বা হ্যাচারীতে ফুটিয়ে উন্নত বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন পোনা উৎপাদন করা হয়।

কিন্তু জলবায়ু পরিবর্তন ও মনুষ্যসৃষ্ট বিভিন্ন ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ড যেমন:- দূষণ, জাল, বড়শি ও বিষ দিয়ে অবৈধ মৎস্য শিকার, অবৈধ বালু উত্তোলন, চরকাঁটা, হালদার উজানে ভুজপুর ও হারুয়ালছড়ি রাবার ড্যাম, ধুরুং খালের উপর কনক্রিট ড্যাম, হালদা ও এর বিভিন্ন শাখাখালসমুহ পলি জমে ভরাট ইত্যাদি কারণে হালদার স্বাস্হ্য ব্যবস্থা তথা জলজ পরিবেশ আজ হুমকির সম্মুখীন। যার সরাসরি প্রভাব পড়ছে হালদার মৎস্য সম্পদের উপর। এর প্রভাবে বিগত দুই বছর (২০২১ ও ২০২২) হালদা থেকে সংগৃহীত ডিমের পরিমাণ ব্যাপকহারে কমেছে।

বর্তমানে হালদা নদীতে চলছে মেজর কার্পজাতীয় মাছের ভরা প্রজনন মৌসুম। কিন্তু জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সৃষ্ট উচ্চ তাপমাত্রা ও ব্রজসহ বৃষ্টিপাত না হওয়ায় হালদা নদীতে ডিম ছাড়ার অনুকুল পরিবেশ সৃষ্টি না হওয়ায় চলতি মাসের (১৮-২২ এপ্রিল) সাম্ভাব্য অমাবস্যার জো’তে ডিম ছাড়েনি মা মাছ। মেজর কার্পজাতীয় মাছের অত্যানুকুল তাপমাত্রা হচ্ছে (২২-৩০) ডিগ্রী সেলসিয়াস তবে এরা অল্প সময়ের জন্য সর্বোচ্চ ৩৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রা সহ্য করতে পারে। মেজর কার্প জাতীয় মাছের প্রজনন আচরণ পানির তাপমাত্রার সাথে নিবিড়ভাবে সম্পৃক্ত।

হালদার জলজ বাস্তুতন্ত্র মা মাছের ডিম ছাড়ার উপযোগী কিনা জানতে গত ২০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার হালদা নদীর সাত্তারঘাট থেকে মদুনাঘাট পর্যন্ত স্পনিং গ্রাউন্ডের বিভিন্ন অংশ (সাত্তারঘাট, অঙ্গুরীঘোনা, আজিমারঘাট, নাপিতেরঘাট, আমতুয়া, রামদাসমুন্সির ঘাট ও মদুনাঘাট) থেকে পানির নমুনা সংগ্রহ করে সরাসরি হালদা নদীতে ও বাসার নিজস্ব হালদা ল্যাবে পরীক্ষা করে দেখা যায় পানির বিভিন্ন ভৌত ও রাসায়নিক প্যারামিটারের (দ্রবীভুত অক্সিজেন, পিএইচ, কার্বনডাই-অক্সাইড, ক্যালসিয়াম, ট্র্যান্সপারেন্সি, খরতা, ও ক্ষারকত্ব ইত্যাদি) মান আদর্শ মানের মধ্যে রয়েছে।

তবে কার্পজাতীয় মাছের প্রজননের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্যারামিটার যেমন পানির তাপমাত্রা (৩২.৪- ৩৩.৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস, আদর্শ মান: ২০-৩০ ডিগ্রী সেলসিয়াস) এবং লবণাক্ততা (০.২-১.৫ পিপিটি, আদর্শ মান: ০.৫ পিপিটি), টিডিএস (১৯০-১৫০৭ পিপিএম, আদর্শ মান-১০০০ পিপিএম), এবং ইলেকট্রিক্যাল কনডাক্টিভিটি (৩৭৯-৩০১৩ মাইক্রোসিমেন্স/সেন্টিমিটার, আদর্শ মান-৩৫০ মাইক্রোসিমেন্স/সেন্টিমিটার) আদর্শ মান অতিক্রম করেছে।

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সৃষ্ট সাময়িক এই তাপমাত্রা ও সামান্য লবণাক্ততা হালদায় কার্পজাতীয় মাছের প্রজননে খুব বেশি প্রভাব ফেলবেনা। কারণ মেজরকার্প জাতীয় মাছ সর্বোচ্চ ৩৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রা এবং সহজে ৫ পিপিটি এমনকি সর্বোচ্চ ১৪ পিপিটি পর্যন্ত লবণাক্ততা সহ্য করতে পারে।

তাছাড়া আগামী কয়েকদিনের মধ্যে বৃষ্টিপাত হলে বিদ্যমান উচ্চ তাপমাত্রা, সামান্য লবণাক্ততা ও অন্যান্য প্যারামিটারসমুহ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে৷ বর্তমানে হালদা নদীর বিভিন্ন স্পনিং পয়েন্টে মা মাছের আনাগোনা দেখা যাচ্ছে। পরিবেশ অনুকুলে থাকলে অর্থাৎ বজ্রপাতসহ পর্যাপ্ত পরিমাণে বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢল নেমে আসে তাহলে আগামী পূর্ণিমার জো’তে অর্থাৎ মে মাসের প্রথম সপ্তাহে (২-৭) তারিখ হালদা নদীতে মেজর কার্পজাতীয় মা মাছের ডিম ছাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আগামী পূর্ণিমার জো’তো পরিবেশ অনুকূলে না থাকলে পরবর্তী অমাবস্যার জো অর্থাৎ (১৬-২১) মে অথবা পূর্ণিমার জো (১-৬) জুন অথবা (১৫-২০) জুন অমাবস্যার জো’তে কার্পজাতীয় মা মাছ ডিম ছাড়বে।

ড.মো. শফিকুল ইসলাম
হালদা গবেষক
বিভাগীয় প্রধান
জীববিজ্ঞান বিভাগ
চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজ

সর্বশেষ

৮ ঘণ্টায়ও খোঁজ মেলেনি চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর পরিচালকের 

কালুরঘাটে নৌকা থেকে ছিটকে পড়ে নিখোঁজের ৮ ঘণ্টা পেরিয়ে...

ইসকন প্রবর্তক শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরে শ্রীজগন্নাথ দেবের স্নানযাত্রা অনুষ্ঠিত

আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ ইসকন প্রবর্তক শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরের উদ্যোগে আজ...

দিল্লী সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতে দুই দিনের সরকারি সফর শেষে...

রাসেল ভাইপার সাপে কাটা আক্রান্ত হওয়ার ভীতি দূরীকরণসহ ব্যবস্থা গ্রহণে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জনের নির্দেশনা

সাম্প্রতিক সময়ে রাসেল ভাইপারের উপস্থিতি উদ্বেগজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়ার...

চকরিয়ায় পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু

চকরিয়ায় পুকুরে ডুবে মো. সাফওয়ান নামে তিন বছর বয়সী...

কালুরঘাটে ফেরি থেকে ছিটকে পড়ে যুবক নিখোঁজ, উদ্ধার ১

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর কালুরঘাটে ফেরি থেকে ছিটকে পড়ে এক...

আরও পড়ুন

মহান মে দিবসের অতৃপ্ত প্রাপ্তি ও অজেয় ভাবনা

মহান মে দিবস, ১৮৮৬ ইংরেজি সালে আমেরিকার শিকাগো শহরে অবস্থিত হে-মার্কেটের শ্রমিক সমাবেশে তৎকালীন মার্কিন সরকারের পুলিশ বাহিনী ও শিল্প মালিকদের পোষা গুন্ডা বাহিনী...

ভাষাগত দক্ষতা অর্জন ও ক্যারিয়ার প্লানিং

গত শতাব্দীর ‘৬০ এর দশকে একজন দার্শনিক তার বইতে উল্লেখ করেন একবিংশ শতাব্দীতে “যোগ্যরাই কেবল টিকে থাকবে, বাকীরা হারিয়ে যাবে।” আমরা বর্তমানে সেটাই লক্ষ্য...

ড. ইউনূসের পক্ষে ১২ মার্কিন সিনেটরের চিঠি কি অজ্ঞতাপ্রসূত?

শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে নিয়ে সমালোচনা এখন তুঙ্গে। সম্প্রতি তাঁকে ‘হয়রানি’ করা হচ্ছে বলে দাবি করছেন যুক্তরাষ্ট্রের ১২ জন সিনেটর।...

‘নিরপরাধ’ ড. ইউনুসকে বিবৃতি আনতে শত কোটি খরচ করতে হয় কেন?

২০০৬ সালে মুহাম্মদ ইউনূস নোবেল শান্তি পুরস্কার লাভ করেন। তখন থেকে ভাবা হয়েছিল তিনি বুঝি দেশের জন্য সম্মান বয়ে আনবেন। কিন্তু তার বিরুদ্ধে মামলা...