ADVERTISEMENT

ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরলেন আর্জেন্টিনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক:

0
শেয়ার
28
দেখেছে
ADVERTISEMENT

রিও ডি জেনিরোর মারাকানা ফুটবল স্টেডিয়াম গ্রহের এই সেরা ফুটবলারকে আর নিরাশ করেনি। সাত বছর আগে সতীর্থদে ব্যর্থতার কারণে শিরাপা জিততে না পারার কারণে বেদনাহত মেসির কথা হয়তো মনে রেখেছিল মারাকানা। যে কারণে এবারের কোপা ফাইনালে নিজ দেশ ব্রাজিলের চেয়ে মেসির হাতে একটি ট্রফি তুলে দেয়াকেই স্রেয় মনে করেছে ফুটবলের ‘মক্কা’খ্যাত এই স্টেডিয়াম।

ফাইনালে ব্রাজিলকে ১-০ গোলে হারিয়ে কোপা আমেরিকা শিরোপা জয়ের পর এক দফা উল্লাস, আনন্দ উদযাপন কয়েছে মারাকানার বুকেই। ট্রফি নিয়ে সেখানে মেসির শিশুসূলভ উচ্ছ্বাস আর উল্লাস ছিল দেখার মতো।

সতীর্থদের সঙ্গে নাচলেন, গাইলেন, উল্লাসে মাতলেন, ভিক্টরি ল্যাম্প দিলেন, সতীর্থরা তাকে শূন্যে ছুঁড়ে দিয়ে কোপা জয় উদযান করেছে। কিন্তু মেসির তর সইছিল না নিজ দেশে ফেরার জন্য। মাঠেই তাকে দেখা গেছে স্ত্রী-পূত্রদের সঙ্গে মোবাইলের ভিডিও কলে আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে।

ADVERTISEMENT

সুতরাং, আর দেরি কেন! রিও থেকে বিশেষ ফ্লাইটে করে সোজা মেসি এবং তার সতীর্থরা উড়ে গেলেন আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সে। সেখানকার এজেইজা বিমানবন্দরে এসে অবতরণ করেন লাতিন জয়ী মেসি এবং তার সতীর্থরা। ২৮ বছর আগে গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতারা এভাবে সর্বশেষ একটি ট্রফি নিয়ে বুয়েন্স আয়ার্সের মাটি স্পর্শ করেছিলেন। এরপর সেই সৌভাগ্য আর হয়নি আর্জেন্টাইনবাসির যে, একটি শিরোপা উৎসব করবে!

অবশেষে সেই উপলক্ষ রচনা করে দিলেন মেসিরা। বিমানবন্দরে নামতেই ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানানো হয় কোপাজয়ী আর্জেন্টিনা দলকে। এরপর তোলা হয় চ্যাম্পিয়ন লেখা দুটি বাসে। সেই বাসে করে পুরো বুয়েন্স আয়ার্স প্রদক্ষিণ করেন মেসিরা। পথের ধারে দাঁড়িয়ে হাজার হাজার মানুষ অভিনন্দন জানালেন মেসিদের।

করোনা মহামারির কারণে আনুষ্ঠানিকভাবে মেসিদের আনুষ্ঠানিকভাবে সংবর্ধনা জানানোর কোনো পরিকল্পনা ছিল না আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (এএফএ)। যে করোনার কারণে স্বাগতিক হয়েও টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে পারেনি আর্জেন্টিনা। তবে বিজয়ীর বেশে ফিরে আসা দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

ADVERTISEMENT

স্থানীয় সময় রোববার ভোরেই রিও ডি জেনিরো থেকে বুয়েন্স আয়ার্সে এসে পৌঁছান মেসিরা। সেখানে এসেই করোনা টেস্ট দিতে হয়েছে তাদের। এরপর ‘চ্যাম্পিয়ন্স অব আমেরিকা-২০২১’ এবং ১৫ নাম্বার উৎকীর্ণ করা বাসে উঠে এসন মেসি অ্যান্ড কোং। ১৫ হচ্ছে কোপা আমেরিকা জয়ের সংখ্যা।

পুলিশ পাহারায় শহর প্রদক্ষিণ করার মেসি চলে যান নিজের জন্মভূমি রোজারিওতে। সেখানে গিয়েই স্ত্রী আনতোনেল্লা রোকুজ্জোকে আলিঙ্গানাবন্ধ করেন মেসি। ছেলেদের সঙ্গে সরাসরি ভাগাভাগি করে নিলেন শিরোপা জয়ের আনন্দ।

আরো নিউজ

পরের সংবাদ

আপনার গুরুত্বপূর্ণ মতামত দিন, আপনার মতামত আমাদের পথ চলার পাথেয়

সর্বশেষ সংবাদ

আর্কাইভ