আজ শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ইং

পথশিশুদের সমাজের মূলস্রোতে ফিরিয়ে আনতে হবে

সৈকত প্রকৃতি    |    ০৬:১৪ পিএম, ২০১৯-১২-২৬



পথশিশুদের সমাজের মূলস্রোতে ফিরিয়ে আনতে হবে

রাস্তায় চলাফেরা করতে গিয়ে চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন জায়গায় পথশিশুদের ঘুরতে দেখা যায়। অনেকের হাতে থাকে বাটি, সারাদিন ভিক্ষা করতে দেখা যায় অনেক পথশিশুদের। নগর জুড়ে বয়স্ক ব্যক্তিদের ও চোখে পড়ে ভিক্ষা করতে।

চট্টগ্রাম কলেজ ও হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ'র আশেপাশে ছোট ছোট শিশুরা স্কুল, কলেজ পড়ুয়া মেয়েদের ব্যাগ টেনে ধরে রাখে কয়েকটা টাকার জন্য। কারো কপালে জুটে টাকা, আর কারও কপালে জুটে তিরস্কার। আবার অনেকেই টাকা দিতে না চাইলে ও সেই পথশিশুরা  নাছোড়বান্দা, টাকা তাদেরকে দিতেই হবে। অনেক সময় ছোট শিশুটির গায়ে হাত ও তুলে ফেলেন কেউ কেউ।                                            

সোশ্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক এনহান্সমেন্ট প্রোগ্রাম (সিপ) নামের একটি সংস্থার প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, পথশিশুদের প্রায় ৪৪ শতাংশ মাদকাসক্ত। ৪১ শতাংশ শিশুর ঘুমানোর কোনো বিছানা নেই, ৪০ শতাংশ শিশু গোসল করতে পারে না, ৩৫ শতাংশ খোলা জায়গায় মলত্যাগ করে, ৫৪ শতাংশ অসুস্থ হলে দেখার কেউ নেই এবং ৭৫ শতাংশ শিশু অসুস্থ হলে ডাক্তারের সঙ্গে কোনো ধরনের যোগাযোগ করতে পারে না৷
একই গবেষণায় বলা হয়, ৩৪ দশমিক ৪ শতাংশ শিশু কোনো একটি নির্দিষ্ট স্থানে সর্বোচ্চ ছয় মাস থাকে৷ এদের মধ্যে ২৯ শতাংশ শিশু স্থান পরিবর্তন করে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কারণে আর ৩৩ শতাংশ পাহারাদারের কারণে৷
খোলা আকাশের নীচে ঘুমানোর পরও তাদের মধ্যে ৫৬ শতাংশ শিশুকে মাসিক ১৫০ থেকে ২০০ টাকা নৈশপ্রহরী ও মাস্তানদের দিতে হয়৷ তারা পুলিশিং নির্যাতন এবং গ্রেপ্তারেরও শিকার হয়৷পথশিশুদের দিয়ে  ‘‘অপরাধীচক্রগুলো মাদকসহ নানা অবৈধ ব্যবসায় কাজে লাগায়৷ এরা অপরাধী নয়৷ এরা অপরাধের শিকার হয়৷ রাজনৈতিক দলগুলোও তাদের নানা কাজে ব্যবহার করে৷

বাংলাদেশে পথ শিশুর সংখ্যা নিয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো জরিপ নেই৷ কেউ বলেন ২০ লাখ৷ আবার কেউ বলেন ২৫ লাখ৷ ঢাকা শহরে আছে কমপক্ষে ৬-৭ লাখ৷ তবে এদের মধ্যে ৫০ হাজার শিশু আক্ষরিক অর্থেই রাস্তায় থাকে।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অপরাজেয় বাংলাদেশের ২০১৮ সালের তথ্য মতে চট্টগ্রাম বিভাগে পথশিশুর সংখ্যা ৫৫ হাজার। এর মধ্যে চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন, কোতোয়ালি, রিয়াজউদ্দিন বাজার এলাকায় পথশিশুর সংখ্যা প্রায় দুই হাজার। এর অধিকাংশ শিশু ড্যান্ডি ও ইয়াবা আসক্ত। শুধু তাই নয়, এসব শিশু সামান্য অর্থের বিনিময়ে জড়িয়েছে মাদক পাচারেও।                                        

রাষ্ট্রের উচিত রাষ্ট্রের অবহেলিত, নিপীড়িত, গরীব দুস্থ জনগণদের পুনর্বাসিত করা।পথশিশুদের পুনর্বাসন সময়ের দাবী। সমাজের গরীব ও পথশিশুরা যদি সমাজের মূল স্রোতের বাইরে থেকে যায় তাহলে দেশের সার্বিক উন্নয়ন,অগ্রগতি এবং উন্নত রাষ্ট্র তৈরীতে অন্তরায় হবে।সমাজের দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে শিক্ষার আলো ও বেসিক শিক্ষার আওতায় আনা না যায় তাহলে সমাজে অপরাধ দিন দিন বৃদ্ধি পাবে, যার ফলে ঘটবে আইনশৃঙ্খলার অবনতি।  
সমাজের বিত্তবান ব্যক্তিরা চাইলে ও পারেন,পথশিশু ও গরীর দুস্থদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে।পথশিশু, অনাথ ও অবহেলিতদের জন্য থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করে দিতে। একজন ব্যক্তির তো জীবনে চলার জন্য হাজার হাজার কোটি টাকার দরকার নেই।মানুষ পৃথিবী থেকে বিদায় নেওয়ার সময়  টাকা বা সম্পত্তি নিয়ে যেতে পারে না। তাহলে এত সম্পদ ও টাকা পয়সা কি জন্য ?   উদ্ধৃত্ত কয়েক কোটি টাকা দিয়ে যদি অনাথাশ্রম বা থাকার জন্য কিছু করা যায় সেই সব অবহেলিত ও পথশিশুদের জন্য। তাহলে কিছুটা হলে ও তাদের কষ্ট লাঘব হবে। সবাই স্বর্গ আর বেহেস্তের পেছনে আছে। মানুষকে সেবা করার মধ্যে আজকাল মানুষ বেহেস্ত আর স্বর্গ খুঁজে পাইনা বলেই মানুষ টাকার পাহাড় গড়ছে। এই বিধাতা, ঈশ্বর, আল্লাহ এর নিয়মটা দেখে মাঝে মাঝে হতবাক হয়, কেউ পথে পড়ে থাকে আর কেউ থাকে রাজপ্রসাদে..

রিলেটেড নিউজ

 এক সাথেই ৬ ভাই-বোনের দ্বিতীয়বার বিয়ে!

এক সাথেই ৬ ভাই-বোনের দ্বিতীয়বার বিয়ে!

অনলাইন ডেস্ক, চট্টগ্রাম নিউজ। : ১৯৮০ সালে একবার বিয়ে করেছিলেন সুদীপ দাস। শনিবার রাতে ৬৪ বছর বয়সে আবার বিয়ে করলেন। পাত্রী একই, ৫৩...বিস্তারিত


রোগ প্রতিরোধ বাড়ায় যেসব খাবার

রোগ প্রতিরোধ বাড়ায় যেসব খাবার

অনলাইন ডেস্ক, চট্টগ্রাম নিউজ। : বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।...বিস্তারিত


সর্বপ্রথম কোয়ারেন্টাইন উদ্ভাবন করেন  হযরত মোহাম্মদ (সা:)

সর্বপ্রথম কোয়ারেন্টাইন উদ্ভাবন করেন হযরত মোহাম্মদ (সা:)

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, চট্টগ্রাম নিউজ। : করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে রক্ষা পেতে কোয়ারেন্টাইন ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। এটি যেকোনো উপায়ে...বিস্তারিত


বিশ্বকে বারবার কাঁপিয়ে দিয়েছে যেসব মহামারী!

বিশ্বকে বারবার কাঁপিয়ে দিয়েছে যেসব মহামারী!

অনলাইন ডেস্ক, চট্টগ্রাম নিউজ। : করোনাভাইরাসের জেরে এই মুহূর্তে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ ইতালি। মৃতের সংখ্যার নিরিখে চীনকেও টপকে...বিস্তারিত


মননশীল জাতি গঠনে বই পড়ার ভূমিকা অপরিসীম

মননশীল জাতি গঠনে বই পড়ার ভূমিকা অপরিসীম

সৈকত প্রকৃতি : মননশীল মানবিক সাংস্কৃতিক সংগঠন সেবাঘর সংঘের তৃতীয় প্রকল্প এম এন আখতার সংগীত সেবাঘরের আয়োজনে...বিস্তারিত


বাঙালিকেই প্রথম বাংলা ভাষা ও একটি দেশ দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু: ড. অনুপম সেন

বাঙালিকেই প্রথম বাংলা ভাষা ও একটি দেশ দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু: ড. অনুপম সেন

জে.জাহেদ, সিনিয়র রিপোর্টার। : সাংবাদিক হলো জাতির চতুর্থ স্তম্ভ। আজকের বাংলাদেশ স্বাধীন দেশ। সংবিধানে আছে এদেশের মালিক জনগণ।...বিস্তারিত


সর্বপঠিত খবর

কাউন্সিলর জসিমের বাসায় এমপি দিদার অবরুদ্ধ

কাউন্সিলর জসিমের বাসায় এমপি দিদার অবরুদ্ধ

স্টাফ রিপোর্টার । : চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচনে বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থী জহুরুল আলম জসিমের বাসায়...বিস্তারিত


চসিকে তিন মেয়র প্রার্থীর হলফনামায় যার যত সম্পদ!

চসিকে তিন মেয়র প্রার্থীর হলফনামায় যার যত সম্পদ!

জে.জাহেদ, সিনিয়র রিপোর্টার। : চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম...বিস্তারিত