গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধিত। নিবন্ধন নং – ৬০
Saturday, 22 June 2024

ভারতের নির্বাচনের ফলাফল দুইদেশের সম্পর্কে প্রভাব ফেলে না

নিজস্ব প্রতিবেদক

ভোট গননার মধ্যে দিয়ে ভারতে লোকসভা নির্বাচনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হচ্ছে আজ। ফলাফলের মাধ্যমে জানা যাবে কে আসছে ক্ষমতায়। এবারের লোকসভা নির্বাচনে প্রায় ১০০ কোটি ভারতীয় ভোট দিয়েছেন। ২০১৪ সালের মে থেকে ১০ বছর ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বিজেপি নেতা নরেন্দ্র মোদী। এবারে ভোটের হিসাব পাল্টে গেলে নতুন সরকারের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক কেমন হবে তা নিয়ে অনেকেই আছেন দ্বিধার মধ্যে। ভারতের নতুন সরকার যেই রাজনৈতিক দল গঠন করুক না কেন , তা বাংলাদেশ – ভারত সম্পর্কে প্রভাব পড়বে না। এজন্যই নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার আগেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরের তারিখ নির্ধারণ হয়ে গেছে। শেখ হাসিনাই হচ্ছেন ভারতে নতুন সরকারের প্রথম বিদেশি অতিথি।

ভারতে যে রাজনৈতিক দলই ক্ষমতায় আসুক, তাতে ‘বাংলাদেশ নীতি’তে পরিবর্তনের কোনও সম্ভাবনা নেই বলে মনে করে আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা। শেখ হাসিনার সরকারের সঙ্গেও সম্পর্কের পরিবর্তন ঘটবে না বলে মনে করেন তারা । কারণ কংগ্রেস এবং বিজেপি সব সরকারের সঙ্গে শেখ হাসিনা সরকারের বন্ধুত্বের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ হয়েছে।  ভূ-রাজনৈতিক স্বার্থে ভারতের সব দলের সরকারই শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রাখে। তবে মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার বহাল থাকলে, তিস্তা চুক্তি সম্পাদন ও গঙ্গা চুক্তির নবায়ন,  সীমান্ত হত্যা বন্ধের বিষয়ে উদ্যোগের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।  মোদী -হাসিনা সরকারের আমলে দুই দেশের মধ্যে ছিটমহল বিনিময়, স্থল সীমান্ত চুক্তি, সড়ক পথে ট্রানজিট, চট্টগ্রাম ও মোংলা সমুদ্র বন্দর ব্যবহারের অনুমতিসহ আরো বেশ কিছু চুক্তি হয়েছে।

বাংলাদেশ–ভারত সম্পর্কের গভীরতা কতটা সেটা বোঝাতেই সেদেশের জাতীয় নির্বাচনের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিনয় মোহন কোয়াত্রা গত ৯ মে ঢাকা সফরে আসেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানাতে এসে তিনি দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় নিয়েও গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করেন। ভারতীয় পররাষ্ট্র সচিবের ঢাকা সফরে তিস্তা, ভিসা, সীমান্ত সন্ত্রাসের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ও আলোচিত হয়। বহুমাত্রিক সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে যে ঢাকা ও দিল্লি অনেক বেশি যত্নশীল সেটাও বোঝা যায় তার সফরে।

ভারতে নতুন সরকার গঠনের পর প্রথম বিদেশ অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিল্লি যাবেন। আগামী ২১ ও ২২ জুন সরকারি সফর হিসেবে নয়া দিল্লি যাবেন শেখ হাসিনা। তার দিল্লি সফর উভয় দেশের সম্পর্ককে আরও উন্নত করবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

ভারতে যে দলই ক্ষমতায় আসুক না কেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রে তার কোনও প্রভাব পড়ে না। ২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে বিজেপির সরকার গঠিত হলেও আমাদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে কোনও নেতিবাচক প্রভাব পড়েনি। বরং গত ১০ বছরে আগের থেকে আরও ভালো হয়েছে বন্ধুত্ব। নরেন্দ্র মোদীর আগে সরকার প্রধান ছিলেন কংগ্রেস নেতা মনমোহন সিং। ২০১১ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে মনমোহন সিং ঢাকা সফরে আসেন। সেটি একটি ঐতিহাসিক সফর ছিল। কারন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে তিনি ঢাকা সফরে এসেছিলেন। ১৯৭২ সালের মার্চে ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী প্রথমবারের মতো দ্বিপক্ষীয় সফরে ঢাকা এসেছিলেন। মূলত, এরপরই মনমোহন সিং দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দ্বিপক্ষীয় এই সফরে আসেন।

অবশ্য এর মধ্যে রাজিব গান্ধী, চন্দ্র শেখর, পি ভি নরসীমা রাও, আই কে গুজরাল ও অটল বিহারি বাজপাই ঢাকা এসেছিলেন। এদের মধ্যে ১৯৯৯ সালে ঢাকা-কলকাতা বাস সার্ভিস উদ্বোধনের জন্য মাত্র দুই ঘণ্টার জন্য অবস্থান করেন অটল বিহারি বাজপাই। এছাড়া অন্যরা এসেছিলেন সার্ক সম্মেলন, বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া-পাকিস্তান বাণিজ্য সম্মেলন ও বন্যা দুর্গতদের দেখতে।

বাংলাদেশ-ভারতের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কবাড়াতে এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতা জোরদার করতে মনমোহনের সফরকে একটি ‘মাইলফলক’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছিল। ২০১৪ সালে দ্বিতীয়বারের মতো শেখ হাসিনা সরকার গঠন করলে ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং টেলিফোনে ও চিঠি লিখে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন। কংগ্রেসের দীর্ঘ শাসনকালে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের বন্ধুত্ব গভীর হয়। কিন্তু বিজেপি নেতা অটলবিহারী বাজপেয়ী কিংবা বর্তমানে নরেন্দ্র মোদি প্রধানমন্ত্রী চেয়ারে বসলেও দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে কোনও নেতিবাচক প্রভাব পড়েনি। বরং ঐতিহাসিক সম্পর্ককে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ জায়গায় উন্নিত করেছেন মোদি।

আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদের মতে, কোনো নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দল নয়, ভারত হচ্ছে বাংলাদেশের বন্ধু। সেখানে যাঁরাই ক্ষমতায় আসুক বাংলাদেশ বা তাঁর দল তাদের সঙ্গেই কাজ করবে। অতীতেও এমনই হয়েছে।
ড. শাম্মী বলেন, ভারতে গণতান্ত্রিক পদ্ধতির একটা ঐতিহ্য রয়েছে। সেখানে জনগণ তাদের ভোট প্রয়োগের পরিপূর্ণ সূযোগ পান এবং পছন্দের নেতা নির্বাচিত করার সূযোগ পান।  আমাদের সম্পর্ক ভারতের জনগণের সঙ্গে এবং তাদের দ্বারা নির্বাচিত সরকারের সঙ্গে । তাই যাঁরাই নির্বাচিত হবেন বাংলাদেশ তাদের সঙ্গেই কাজ করবে।

বাংলাদেশের সঙ্গে ছিটমহল সমস্যার সমাধানও হয়েছে মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর। তাই ভারতের প্রয়াত সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় মন্তব্য করেছিলেন, মোদি ও হাসিনার আমলেই দিল্লি ও ঢাকার সম্পর্ক সবচেয়ে ভালো হয়েছে।

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষকরা বলছেন, যদি বিজেপি জোট ক্ষমতায় থাকে বা না থাকে তারপরও বাংলাদেশের সঙ্গে দেশটির সম্পর্কে কোনো প্রভাব পড়বে না। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষক ও সাবেক পররাষ্ট্র সচিব মো. তৌহিদ হোসেন এই প্রসঙ্গে বলেন, একরকম নিশ্চিত যে বিজেপি জোটই ক্ষমতায় আসছে। তবে কংগ্রেস বা বিজেপি যেই ক্ষমতায় আসুক, বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কে কোনো হেরফের হবে না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, ‘ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে নিরাপত্তার সমস্যা সমাধান করেছে বাংলাদেশ। সে হিসেবে ভারতও মনে করে যে বন্ধুরাষ্ট্র থাকাটা তাদের জন্যও খুব গুরুত্বপূর্ণ।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কোন দেশের সঙ্গে কোন দেশের ঝগড়া, সেটা আমার দেখার দরকার নেই। নিজের দেশের উন্নয়নটা আমার আগে দরকার। উন্নয়নে যারা সহযোগিতা করবে, আমি তাদের নিয়েই চলবো। সেভাবে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।

সর্বশেষ

থানচিতে ট্রাক খাদে পড়ে নিহত ১

বান্দরবানের থানচিতে মালবাহী ট্রাক খাদে পড়ে একজন নিহত হয়েছেন।...

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জয়শঙ্করের সাক্ষাৎ, পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড....

যোগব্যায়াম বিশ্বের কাছে ভারতের একটি উপহার: ডা. রাজীব রঞ্জন

চট্টগ্রামে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনের উদ্যোগে নানা বয়সী ৮শ’ যোগব্যায়ামে...

ব্যবসায়িদের ৩ কোটি টাকা আত্মসাতের মূলহোতা বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের সদরঘাট স্ট্যান্ড রোডের মাছ ব্যবসায়ীদের প্রায় তিন কোটি...

নয়াদিল্লি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে...

রাউজানে পুকুরে স্কুলছাত্রীর লাশ

চট্টগ্রামের রাউজানে পুকুর থেকে তানহা আকতার (০৯) নামে এক...

আরও পড়ুন

থানচিতে ট্রাক খাদে পড়ে নিহত ১

বান্দরবানের থানচিতে মালবাহী ট্রাক খাদে পড়ে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৩ জন।শুক্রবার (২১ জুন) রাত সাড়ে ৮টার দিকে থানচির জীবন...

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জয়শঙ্করের সাক্ষাৎ, পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর। এ সময় পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।আজ শুক্রবার (২১ জুন) ভারতের রাজধানী...

যোগব্যায়াম বিশ্বের কাছে ভারতের একটি উপহার: ডা. রাজীব রঞ্জন

চট্টগ্রামে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনের উদ্যোগে নানা বয়সী ৮শ’ যোগব্যায়ামে উৎসাহীকে নিয়ে বর্ণিল আয়োজনে উদযাপিত হলো আন্তর্জাতিক ১০তম যোগ দিবস। যোগ দিবসে শিশু থেকে শুরু...

ব্যবসায়িদের ৩ কোটি টাকা আত্মসাতের মূলহোতা বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের সদরঘাট স্ট্যান্ড রোডের মাছ ব্যবসায়ীদের প্রায় তিন কোটি টাকা আত্মসাৎকারী এন এন ফিশ প্রতিষ্ঠানের মালিক মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন (৩৯) কে রাজধানী ঢাকার হযরত...