আজ শনিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২০ ইং

মায়ের দোয়ার চেয়ে আর বড় কিছু নেই: মুকেশ আম্বানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, চট্টগ্রাম নিউজ।    |    ০৬:৩০ পিএম, ২০২০-০১-০৭



মায়ের দোয়ার চেয়ে আর বড় কিছু নেই: মুকেশ আম্বানি

মুকেশ আম্বানি ভারতের বর্তমান শীর্ষ ধনী। তিনি বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনীদের মধ্যে একজন। সম্প্রতি নিজের মেয়ের বিয়েতে ব্যয় করেছেন ৭০০ কোটি টাকা। খ্যাতিমান এই শিল্পপতির প্রতিদিন কীভাবে কাটান, তা নিয়ে মানুষের অনেক আগ্রহ রয়েছে। মুকেশ কীভাবে দিন কাটান বা তার প্রতিদিনের কর্মতালিকায় কী কী বিষয় থাকে, তা নিয়ে সম্প্রতি সংবাদ প্রকাশ করেছে ভারতীয় গণমাধ্যম।

জয়পুরে মুকেশ আম্বানি বিলাসবহুল বাড়িটির নাম ‘অ্যান্টিলা’। এই অ্যান্টিলা থেকে তার অফিসের দূরত্ব ৩০ মিনিটেরও কম সময়ের। এখানেই থানে পুরো আম্বানি পরিবার। মুকেশ আম্বানি ভোর থাকতে থাকতেই ঘুম থেকে উঠে পড়েন। সাধারণত তিনি ভোর ৫টা থেকে সাড়ে ৫টার মধ্যই নিদ্রা শেষ করেন। বাথরুমের কাজ শেষে ৩০ মিনিটের মধ্যে চলে যান অ্যান্টিলার দ্বিতীয়তলায়। এই ফ্লোরে রয়েছে তার জিমনেশিয়াম। সেখানেই তিনি ব্যাম করেন।

তবে শুধু আনুষ্ঠানিকতা নয়, রীতিমতো ঘাম ঝরান দেহ থেকে। সকাল ৮টার মধ্যে গোসল সেরে সকালের নাশতার প্রস্তুতি শেষ করেন। ৮টার দিকে চলে যান ১৯ তলায়। সেখানে পরিবার নিয়ে সকালের নাশতা সারেন ঘণ্টাখানেক সময় নিয়ে। তার সকালের নাশতায় পেঁপের জুস বাধ্যতামূলক। ৯টার মধ্যে নাশতা সেরে অফিসে যাওয়ার প্রস্তুতি নেন আম্বানি। অ্যান্টালির ১৪ তলায় থাকে তার অফিসের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র। ১৪ তলার তার ব্যক্তিগত অফিস হিসেবে ব্যবহার হয়।

অফিসে যাওয়ার সব প্রস্তুতি সেরে ১০টা ১০ মিনিটের দিকে চলে যান মায়ের কাছে। মায়ের কাছ থেকে আশীর্বাদ নিয়ে ঘর ছাড়েন তিনি। অন্য কোনো কাজ বাদ পড়লেও এই কাজটি কখনো বাদ পড়তে দেন না তিনি। মায়ের কাছ থেকে দোয়া ১৬ তলায় স্ত্রী আর ১৩ তলায় সন্তানদের সঙ্গে দেখা করে অফিসের উদ্দেশে রওনা হন। মুকেশ মাঝে মাঝে নিজেই গাড়ি চালান। অফিস বেরি দূরে না হওয়ায় সাড়ে ১১টার মধ্যে তিনি অফিসে পৌঁছে যান।

অফিসে আগে থেকেই তার কার্জতালিকা প্রস্তুত থাকে। ব্যক্তিগত সহকারীর কর্মতালিকা দিয়ে সেটি দেখে সে অনুযায়ী কাজ শুরু করেন মুকেশ। সকাল ১১টা থেকে তিনি অফিসের কাজ শুরু করেন এবং শেষ করেন রাত ৮টায়। ৮টার পরপরই তিনি অফিস থেকে বাসার উদ্দেশে বের হন। ৯টার মধ্যে বাসায় ফিরে ১৫ তলায় গিয়ে অফিসের পোশাক ছাড়েন। বাসায় ফিরে তিনি সময় নষ্ট না করে ৯টার পরপরই পরিবারের সদস্যদের নিয়ে খাবারের টেবিলে চলে যান।

রাত ‌১০টার মধ্যে খাবার সেরে ফেলেন। মুকেশ আম্বানির রাতের খাদ্য তালিকায় থাকে চাপাটি, ভাত, ডাল, সবজি, সালাদ। রাতের খাবার শেষ করে ১ ঘণ্টার মতো সময় তিনি পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কাটান। ১১টার দিকে অন্যরা নিদ্রায় চলে যান। এরপর মুকেশ আরও ঘণ্টাখানেক ব্যক্তিগত কাজ সারেন। ১২টার দিকে তিনি ঘুমিয়ে পড়েন।

রিলেটেড নিউজ

উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে বাংলাদেশ

উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে বাংলাদেশ

চট্টগ্রাম নিউজ ডটকম । : জাতিসংঘ থেকে উন্নয়নশীল দেশের প্রাথমিক স্বীকৃতি পাওয়ার পর এবার দ্রুততম উন্নয়নশীল দেশের তালিকায়...বিস্তারিত


চা উৎপাদনে সর্বকালের রেকর্ড করলো বাংলাদেশ

চা উৎপাদনে সর্বকালের রেকর্ড করলো বাংলাদেশ

সৈকত প্রকৃতি : দেশের চা শিল্পের ইতিহাসে উৎপাদনের নতুন রেকর্ড গড়েছে ২০১৯ সালে চা উৎপাদন। গত বছর মোট চা উৎপাদন...বিস্তারিত


একত্রিশ বছর আগে লাল হয়েছিল লালদীঘির মাটি

একত্রিশ বছর আগে লাল হয়েছিল লালদীঘির মাটি

চট্টগ্রাম নিউজ ডটকম । : ১৯৮৮ সালের ২৪ জানুয়ারি দুপুরে লালদীঘি মাঠের কাছে শেখ হাসিনার গাড়িবহরে পুলিশের গুলিতে ২৪ জনের...বিস্তারিত


বঙ্গবন্ধু অনলাইন আর্কাইভ

বঙ্গবন্ধু অনলাইন আর্কাইভ

চট্টগ্রাম নিউজ ডটকম । : পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে ৯ জানুয়ারি ১৯৭২, ভোর ছয়টায় লন্ডন হিথ্রো বিমানবন্দরের...বিস্তারিত


যেভাবে এগুচ্ছে পদ্মা সেতুর সড়ক পথ

যেভাবে এগুচ্ছে পদ্মা সেতুর সড়ক পথ

বিশেষ প্রতিনিধি। : শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্ত থেকে পদ্মাসেতুর ওপর দিয়ে সড়ক আসছে মুন্সিগঞ্জের মাওয়ার দিকে। প্রায় ৩...বিস্তারিত


আবারও ব্রিটেনের ছায়া উপমন্ত্রী নিযুক্ত হয়েছেন টিউলিপ সিদ্দিক

আবারও ব্রিটেনের ছায়া উপমন্ত্রী নিযুক্ত হয়েছেন টিউলিপ সিদ্দিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, চট্টগ্রাম নিউজ। : আবারও ব্রিটেনের ছায়া উপমন্ত্রী নিযুক্ত হয়েছেন বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপ রিজওয়ানা সিদ্দিক এমপি।...বিস্তারিত


সর্বপঠিত খবর

পেঁপে পাতার রসে একদিনেই ভালো হবে ডেঙ্গু

পেঁপে পাতার রসে একদিনেই ভালো হবে ডেঙ্গু

চট্টগ্রাম নিউজ ডটকম । : ওয়ালি উল্লাহ সিরাজ :  গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে পেঁপে পাতার রসে থ্রম্বোসাইটিস (প্লাটিলেট)...বিস্তারিত


কর্ণফুলীতে দুবাই প্রবাসীর লাশ উদ্ধার: বর সাজা হলো না আর!

কর্ণফুলীতে দুবাই প্রবাসীর লাশ উদ্ধার: বর সাজা হলো না আর!

জে.জাহেদ, সিনিয়র রিপোর্টার। : কর্ণফুলী উপজেলার শিকলবাহা সিডিএর টেক এলাকা থেকে হাত পা বাঁধা অবস্থায় দুবাই প্রবাসী  এক...বিস্তারিত